1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
July 17, 2024, 1:31 am
Title :
সাতক্ষীরায় সংখ্যালঘু-সংখ্যাগুরু বলতে কিছু নেই, সকলেই সমান: এমপি আশু আন্দোলনের নামে মুক্তিযুদ্ধ অবমাননাকারীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি সন্তান কমান্ডের বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে ডিবি গার্লস হাইস্কুলে বিশেষ সভা সর্বজনীন পেনশন স্কিম বিষয়ে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত দেবহাটায় আরইআরএমপি প্রকল্পের নারীদের সঞ্চিত অর্থের চেক ও সনদপত্র বিতরণ দেবহাটায় সুদমুক্ত ঋনের চেক, হুইল চেয়ার ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ খুলনায় বৃক্ষমেলা শুরু তালা বাজার বণিক সমিতির সহ-সভাপতি রানাকে সাময়িক বহিষ্কার সাতক্ষীরার তালায় ডাকাত রিয়াজুল গ্রুপের প্রধান রিয়াজুল ইসলাম গ্রেপ্তার বসন্তপুর নদীবন্দর পরিদর্শন করলেন বিআইডব্লিউটি ও ভূ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা

অভিবাসী কর্মীদের অধিকার বাস্তবায়নে জনমত তৈরিতে সিগনেচার ক্যাম্পেইন

  • আপডেট সময় Thursday, September 8, 2022

চট্টগ্রাম, ২৪ ভাদ্র (৮ সেপ্টেম্বর) : ‘অভিবাসীর অধিকার, মর্যাদা ও ন্যায়বিচার’ শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি (বিএনডবব্লউএলএ) এর উদ্যোগে “স্ট্রেংদেনড্ এন্ড ইনফরমেটিভ মাইগ্রেশন সিস্টেম্স (সিম্স)” প্রকল্পের আওতায় বিএমইটিতে আলাদা সেল প্রতিষ্ঠাসহ অভিবাসী কর্মীদের অধিকার বাস্তবায়নে জনমত তৈরিতে চট্রগ্রাম কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস প্রাঙ্গণে আজ ‘সিগনেচার ক্যাম্পেইন’ অনুষ্ঠিতহয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা জনশক্তি ও কর্মসংস্থান অফিস, চট্রগ্রাম এর উপপরিচালক মো: জহিরুল আলম মজুমদার। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এনজিও প্রত্যাশি এর সিমস প্রকল্প ব্যবস্থাপক বশির আহমেদ মনি, পিআইডি চট্রগ্রামের সহকারী তথ্য অফিসার জি.এম সাইফুল ইসলাম। স্বাগত বক্তৃতা করেন সিমস প্রকল্পের বিএনডবব্লউএলএ’র কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি এডভোকেট ফেরদৌস নিগার।

অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন বিএনডবব্লউএলএ চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান এ্যাডভোকেট দিল আফরোজ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন প্রত্যাশি প্রতিনিধি রশিদা খাতুন। অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন ওমান প্রবাসী পাপ্পু চন্দ্র পাল।

প্রধান অতিথি এ অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতিকে ধন্যবাদ জানান। তিনি তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা সচলে অবদান রাখার জন্য অভিবাসী কর্মীদের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার অভিবাসী কর্মীদের অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে।

দক্ষ হয়ে বিদেশ যাওয়া ও অভিবাসী কর্মীদের প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সমস্যা সমাধানে ও প্রতিকার প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস বা প্রমাণাদী সংরক্ষণের বিষয়ে তিনি গুরুত্ব প্রদান করেন। তিনি অভিবাসী কর্মীদের জন্য সরকার গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রমের বর্ণনা দিয়ে বলেন, সরকার প্রক্রিয়ায় দক্ষ হয়ে বিদেশ গেলে কর্মীর কোন ঝুঁকির আশংকা থাকে না। এছাড়া বিদেশে মারা যাওয়ার মতো বড় দুর্ঘটনা ঘটলে প্রাপ্য ক্ষতিপুরণ প্রাপ্তিও সহজ হয়। অভিবাসন প্রক্রিয়া হয় নিরাপদ।

পরে একজন প্রবাসীর সন্তানের সাক্ষরের মাধ্যমে সিগনেচার ক্যাম্পেইন শুরু হয়। বিএমইটির অধীনে সালিস সম্পন্ন হওয়ার ক্ষেত্রে আলাদা কোন সেল না থাকায় আলাদা সেল করার দাবিতে এ সিগনেচার ক্যাম্পেইন এর আয়োজন করা হয়।

পরে জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের উদ্যোগে প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের মধ্যে শিক্ষা বৃত্তির চেক হস্তান্তর করা হয়। এসময় প্রত্যেককে ২৭ হাজার ৫০০ টাকা করে ১২১ জন মেধাবী প্রবাসীর সন্তানদের চেক দেওয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews