1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
June 17, 2024, 7:45 am
Title :
খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ইদজামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শন করলেন সিটি মেয়র সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের উদ্যোগে ২৪১ জনের মাঝে ১৭ লাখ টাকার অনুদানের চেক বিতরণ ঈদে সড়কে শৃংখলা ও সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সাতক্ষীরায় মোটরযানের উপর মোবাইল কোর্ট সাতক্ষীরায় দুঃস্থ-প্রতিবন্ধী শিশুদের মাঝে ঈদ সহায়তা সামগ্রী বিতরণ আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কলারোয়ায় প্রস্তুতিমূলক সভা সাতক্ষীরার উন্নয়নে একযোগে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার অঙ্গিকার শ্যামনগরে অসহায় মানুষকে পূঁজি করে লিডার্সের মোহনের বিরুদ্ধে প্রকল্পের টাকা নয় ছয়ের অভিযোগ শিশুদের জন্য সুন্দর ও সহনশীল আচরণ বিষয়ে সুশীলনের অবহিতকরণ সভা সাতক্ষীরা কমিউনিটি গ্রুপের সেলিব্রেশন এবং বাৎসরিক ফটো কনটেস্টের পুরস্কার বিতরণ শ্যামনগরে ইকো-সিস্টেম ব্যবস্থপনা, জেন্ডার ন্যায্যতা ও জলবায়ু পরিবর্তনে গণ-শুনানী

আশাশুনি টু শ্রীউলা সড়কের নির্মাণ কাজ বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে তিন লক্ষ মানুষ

  • আপডেট সময় Monday, June 14, 2021
এমএম সাহেব আলী, আশাশুনি : সাতক্ষীরার আশাশুনি টু শ্রীউলা সড়কের নির্মাণ কাজ শুরুর পর বন্ধ থাকায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এলাকার ৫ ইউনিয়েন প্রায় তিন লক্ষ মানুষ। যানবাহন চলাচল তো দূরের কথা পায়ে হাঁটাও কষ্টকর হয়ে পড়েছে।
স্থানীয় বাসিন্দা শহিদুল ইসলাম, সুদয় মন্ডল, গোপাল মন্ডল, আব্দুস সামাদসহ অনেকই জানান, আশাশুনি টু কোলাঘোলা ভায়া শ্রীউলা সড়কটি খুবই জনগুরুত্বপূর্ণ। এসড়কে শতশত ভারী ও হালকা যানবাহন চলাচল করে। আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা, প্রতাপনগর, খাজরা ইউনিয়নসহ কালিগঞ্জ, শ্যামনগর, কয়রা উপজেলার মানুষ এ পথে যাতয়াত করে।
কিন্তু সড়কটি সংস্কারের লক্ষ্যে ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে খুড়াখুড়ি করে রাখে সড়ক বিভাগ। এরপর দীর্ঘকাল কাজ না করায় গোটা এলাকার মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছে। তারা আরও জানান, ৩/৪ বছর আগে অনেক খড়কুটো পোড়ানোর এক পর্যায়ে সড়কটির কাজ শুরু হয়। কিন্তু সামান্য কিছু কাজের পর তা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর ২০২০ সালের সুপার সাইক্লােন আম্পান এবং ২০২১ সালের ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে বেড়িবাঁধ ভেঙে সড়কটি প্রায় বিলীন হয়ে যায়।
শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল বলেন, আশাশুনি শ্রীউলা সড়কটি সংস্কারে সরকার ৩০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়। সংস্কারের কাজও শুরু হয়। কিন্তু সড়কটি খুড়ে রাখার পর দীর্ঘিদিন কাজ না হওয়ায় ভোগান্তি বাড়তেই থাকে। চেয়ারম্যান সাকিল আরও বলেন, সাতক্ষীরা টু আশাশুনি সড়ক সংস্কারে ৪৩ কোটি টাকা এবং আশাশুনি টু ঘোলা সড়কে ৩০ টাকার কাজ একই সময়ে শুরু হয়। গত বছর সাতক্ষীরা টু আশাশুনির কাজ শেষ হলেও এই সড়কের কাজ  হয়নি।
বর্তমানে সড়কের মহিষকুড় মৎস্য সেট হতে নাকতাড়া পর্যন্ত অংশে অসংখ্য স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সামান্য বৃষ্টির পানিতে সড়ক ব্যবহার অনুপযোগি হয়ে পড়ছে। কর্দমাক্ততার কারণে যানবাহন চলাচল ও পথচারীদের সড়ক পার হতে কেঁদে ফিরতে হচ্ছে। বাস, ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, মাইক্রো-বাসসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করে এ সড়কে। চিংড়ি এবং অন্যান্য পণ্য রাস্তা দিয়ে পরিবহন করা হয়। তবে সংস্কারের অভাবে রাস্তাটি মৃত্যুর ফাঁদে পরিণত হয়েছে।
সাতক্ষীরা সড়ক বিভাগ সূত্র জানায়, সাতক্ষীরা থেকে আশাশুনি-ঘোলা যাওয়ার রাস্তাটি ৪২ কিলোমিটার দীর্ঘ। সাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী সংসদ সদস্য (সাতক্ষীরা -৩) অধ্যাপক ডাঃ এফ এম রুহুল হক সড়কটি সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে ডিমান্ড অর্ডার (ডিও) চিঠি দিলে একনেকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সড়কটি সংস্কারের জন্য দুটি প্যাকেজে ৭৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দেন।সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন আহমেদ জানান, এটি প্রথম শ্রেণির রাস্তা।
প্রতিটি বাজার অঞ্চলে রাস্তার দু’পাশে  পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা রয়েছে। তিনি বলেন, সাতক্ষীরা থেকে আশাশুনি-ঘোলার দূরত্ব ৪২ কিমি। এই সড়ক সংস্কারের জন্য ৭৩ কোটি টাকা বরাদ্দ পাওয়ার পর সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কটির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। দুটি প্যাকেজে রাস্তাটি শুরু করা হয়েছিল। একই রাস্তায় আশাশুনি থেকে ঘোলা পর্যন্ত সড়কটির কাজ শুরু হলে সুপার সাইক্লোন আম্পান ও ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে ব্যাপক ক্ষতি হয়। রাস্তাটির সংস্কার কাজ পুনরায় শুরু করা হবে।
 সংসদ সদস্য (সাতক্ষীরা -৩) অধ্যাপক ডাঃ এফ এম রুহুল হক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ‘গ্রামকে একটি নগরীতে পরিণত করতে’ সাতক্ষীরা-আশাশুনি ঘোলা সড়কটি বিভিন্ন প্রকল্পে সংস্কার করা হচ্ছে। সড়ক ও সেতু নির্মাণের ফলে পরিবহন ও যোগাযোগের ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। জনগণের দুর্ভোগ লাঘব করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সড়ক সংস্কারের জন্য ৭৩ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদানের জন্য আমরা কৃতজ্ঞ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews