1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
November 30, 2022, 1:25 pm
Title :
বাংলাদেশি ভক্তদের ‘ভার্চুয়াল উপহার’ দিলেন মেসি ২-১ গোলে একুয়েডরকে বিদায় করে শেষ ষোলোয় সেনেগাল জাতীয় দৈনিক বাংলাদেশ ক্রাইম সংবাদে নিয়োগ পেলেন শেখ ইলিয়াস হোসেন দেবহাটা উপজেলা আইনশৃঙ্খলা ও সমন্বয় কমিটির মাসিক সভা বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে উন্নয়নের সিঁড়ি বেয়ে উন্নত রাষ্ট্রের দিকে : জগলুল হায়দার এমপি কালিগঞ্জে উত্তর শ্রীপুর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জরুরী সভা জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে বৈকারীতে প্রধানমন্ত্রীর ব্র্যান্ডিং বিষয়ক মহিলা সমাবেশ কলারোয়ায় শিক্ষক কণ্যা লাবণ্য’র জিপিএ-৫ লাভ কলারোয়ায় সাংবাদিক পুত্র সোহেলের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত  কলারোয়ায় প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে ফারিয়া একাদশ জয়ী

ইউপি নির্বাচনের ব্যালট পুনঃ গননার নির্দেশ হল তালার ধানদিয়া ইউনিয়নে

  • আপডেট সময় Wednesday, May 11, 2022

স্টাফ রিপোর্টার : অবশেষে সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তালার ধানদিয়া ইউপি নির্বাচনের ব্যালট পূনঃগনানার নির্দেশ প্রদান করেছে সাতক্ষীরা নির্বাচন ট্রাইব্যুনাল আদালত। গত ২৮এপ্রিল সাতক্ষীরা ট্রাইবুনাল আদালতের বিচারক মুহাম্মদ নাছির উদ্দীন ফরাজী এ আদেশ দেন।

আদালত সুত্রে জানা যায়, গত ২০২১সালের ২০সেপ্টেম্বর দেশে প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে তালা উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়নে মোটর সাইকেল প্রতিকের প্রার্থী দিদারুল ইসলাম নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ এনে সাতক্ষীরা ট্রাইবুনাল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১১/২০২১।

দীর্ঘদিনের মামলার জটিলতা শেষে চলতি বছরের ২৮ এপ্রিল এ মামলায় ব্যালট গননার পুনঃ নির্দেশ দেয় আদালত। আদেশে আগামী ১৯মে ব্যালট পুনঃগননার জন্য তালা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ মোস্তাফিজুর রহমানও তালা শিক্ষা অফিসার সহ বাদী ও বিবাদী পক্ষের কৌশালীদের হাজির থাকার নির্দেশ প্রদান করা হয়।

মামলার বাদী দিদারুল ইসলাম জানান, ২০২১সালে ২০সেপ্টেম্বর দেশের প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনে সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়নে মোটরসাইকেল প্রতিকে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করি। নির্বাচনে আমার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী ছিলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও টেবিল ফ্যান প্রতিকের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম, নৌকা প্রতিকের শহিদুল ইসলাম, আনারস প্রতিকের হামিজউদ্দীন।

নির্বাচনের রেজাল্ট শীটে মোট ৪৭০টি নষ্ট ভোট সহ ১৩৮৬৫টি ভোট দেখানো হয়। এর মধ্যে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী শহিদুল ইসলাম ১৬৭৩টি, আনারস প্রতিকের প্রার্থী হামিজউদ্দীন ১৫৯৪টি, টেবিল ফ্যান প্রতিকের প্রার্থী ৫৩৫৬টি ও আমি নিজে মোটরসাইকেল প্রতিক নিয়ে ৪৭৭২টি ভোট দেখানো হয়।

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, নির্বাচনের ২/৩ কেন্দ্রের ফলাফল শীটের প্রিজাইটিং অফিসারের সাক্ষর দিতে বিলম্ব হয়। তাছাড়া অধিকাংশ জায়গায় আমার এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়। সবশেষে আমাকে কারচুপির মাধ্যমে আমাকে ৫৮৪ভোটের ব্যাবধানে পরাজয় দেখানো হয়।

বিষয়টি নিয়ে তৎকালীন সময়ে আমি সাতক্ষীরা জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে আবেদন করেও তার প্রতিকার পায় নি। তাই বাধ্য হয়ে আমি গত বছরের নভেম্বর মাসে সাতক্ষীরা নির্বাচন ট্রাইব্যুনাল আদালতে একটি মামলা করি। মামলা নং-১১/২১। মামলার দীর্ঘপ্রক্রিয়া শেষে চলতি বছরের ১৯মে ভোট পুনঃগননার নির্দেশ দেয় আদালত। সঠিক ভাবে ব্যালট পুনঃগননা হলে তার বিজয়ী হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews