1. manobchitra@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
April 18, 2021, 9:03 am
Title :
কলারোয়ায় মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত কিংবদন্তী অভিনেত্রী কবরী চিরস্মরণীয়-বরণীয় -তথ্যমন্ত্রী করোনা সংক্রমণরোধে খুলনা মহানগরে মোবাইল কোর্টের অভিযান, ১৮টি মামলায় ছয় হাজার পাঁচশত টাকা জরিমানা করোনায় দেশে আজও ১০১ জনের মৃত্যু, রোগী শানাক্ত ৩৪৭৩ জন ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে সাতক্ষীরা জেলা আ’লীগের শ্রদ্ধা ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা খুলনায় করোনাকালে কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির উদ্বোধন লকডাউনের মধ্যে সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কে ট্রাক-পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ : আহত ২২ দরিদ্রদের উপহার সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে প্রধানমন্ত্রীর বাণী

গোল্ডেন লাইফ ইনস্যুরেন্সের এর উদ্দ্যোগে জাতীয় বীমা দিবস উদযাপন

  • আপডেট সময় Monday, March 1, 2021

স্টাফ রিপোর্টার : প্রতিবছরের ন্যায় ১ মার্চ সারা দেশের সাথে একযোগে গোল্ডেন লাইফ ইনস্যুরেন্স কোং লিঃ (মুরাদাবা ইসলামী সঞ্চয় বীমা) সাতক্ষীরা জেলা শাখার আমতলা মোড়স্থ নিজস্ব কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও মতবিনিময়ের মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় বীমা দিবসটি পালন করা হয়। একই সাথে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র্রে বীমা দিবসের আলোচনার আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি এ প্রোগ্রামে অংশ নেন।

দিবসটি উপলক্ষ্যে বাণী দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীতে বীমা দিবসের প্রতিপাদ্য ছিল ‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, বীমা হোক সবার।’ এছাড়াও বঙ্গবন্ধু বীমা মেলা আয়োজন করে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। সাতক্ষীরা জেলা শাখার এস জি এম কাজী আকতারুজ্জামান মহব্বতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গোল্ডেন লাইফ ইনস্যুরেন্স কোং লিঃ এর খুলনা বিভাগীয় ডি এম ডি মোঃ আয়ুব হোসেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কোম্পানির এ এমডি নাসিরউদ্দীন ও আজাদ রহমান, জি এম শেখ রবিউল ইসলাম (রবি)’কালীগঞ্জ উপজেলা অফিস ইনচার্জ শেখ আব্দুল বাকী এবং অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন কোম্পানির এ এমডি রেহেনা পারভীন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে গোল্ডেন লাইফ ইনস্যুরেন্স কোং লিঃ এর খুলনা বিভাগীয় ডি এম ডি মোঃ আয়ুব হোসেন বলেন ১৯৬০ সালের ১ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন পাকিস্তানের আলফা ইন্স্যুরেন্সে যোগদান করেছিলেন। ফলে দিনটিকে প্রতিবছর বীমা দিবস হিসাবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয় এ খাতের উদ্যোক্তারা। সরকারও এর অনুমোদন দিয়েছে। সরকার বীমার গুরুত্ব ও সুফল জনগণের কাছে পৌঁছাতে বিভিন্ন সংস্কারমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে।

বীমা শিল্পের উন্নয়নে জাতির পিতার দেখানো পথই আমরা অনুসরণ করছি। ২০০৯ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব পেয়ে আমরা এ ক্ষেত্রে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছি। পুরাতন বীমা আইন-১৯৩৮কে রহিত করে সময়োপযোগী ‘বীমা আইন-২০১০’ এবং ‘বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ আইন-২০১০’ প্রণয়ন করে বীমা অধিদপ্তরকে বিলুপ্ত করে ‘বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ’ গঠন করা হয়েছে।

বীমা হল নির্দিষ্ট অর্থের বিনিময়ে জীবন, সম্পদ বা মালামালের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতির ঝুঁকিতেকে কোন প্রতিষ্ঠানকে প্রানান্তর করা। দেশের পৌনে দুই কোটি মানুষ বিভিন্ন ধরনের বীমার আওতায় এর মধ্যে রয়েছেন। বীমা সাধারন মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের চাবি-কাঠি। কারন আজকের সঞ্চয় একটি পরিবারে জন্য আগামী দিনের ভবিষ্যত। তাই এই সঞ্চয়ের ধারাকে অব্যাহত রাখতে প্রত্যকটি মানুষকে সঞ্চয়ে আরো উৎসাহিত করতে হবে।

তিনি বলেন বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন ব্যাংক ও বীমা দেশের অর্থনৈীতির চালিকাশক্তি। বর্তমানে স্বচ্ছ এবং আধুনিক প্রক্রিয়ায় বীমা পরিচালিত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন পুর্বে অনেক বীমা কোং অসৎ উপায়ে সাধারন গ্রাহকদের ঠকিয়ে নিজেরা লাভবান হয়েছেন।

বর্তমানে সফটওয়ার এবং জবাবদিহিতামুলক প্রক্রিয়ায় অফিস এবং কার্যক্রম পরিচালনা হচ্ছে এতে করে গ্রাহকদের তাদের ন্যায্য প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত করার কোন সুযোগ নেই। এসময় স্থানীয় ও জেলার বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত শতাধিক বীমা কর্মকর্তা ও সহ স্থানীয় গনমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews