1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
December 5, 2021, 10:24 pm
Title :
কলারোয়ায় কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ধানের বীজ ও সার বিতরণ কলারোয়ায় অভ্যন্তরীন আমন মৌসুমে খাদ্যশস্য সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি পড়াশোনা শেষ করে শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে তরুণদের উদ্যোক্তা হতে হবে- প্রধানমন্ত্রী আলীপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহারুল ইসলাম ও জেলা আ’লীগ সদস্য মন্টুর আম্মার মৃত্যুতে জেলা আ’লীগের শোক প্রকাশ হাবিবপুর এতিমখানা মাদ্রাসা ছাত্রদের মাঝে কম্বল বিতরণ কলারোয়ায় প্রয়াত সাবেক চেয়ারম্যান হোসেন আলীর ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকীতে দোয়ানুষ্ঠান বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপে বাগেরহাট জেলা কে ১-০ গোলে পরাজিত করে সাতক্ষীরা জেলার জয়লাভ বিএনপি নেএীর জন্য শেখ হাসিনা যা করেছেন সেটি জিয়া-খালেদা ক্ষমতায় থাকতে করেছেন কিনা প্রশ্ন তথ্যমন্ত্রীর ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্ট এ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনী সাধারন সভা ১১ ডিসেম্বর ধানদিয়া সেনেরগাঁতী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন

তালা সার্জিক্যাল ক্লিনিকে প্রসূতিকে জিম্মি করে অতিরিক্ত টাকা দাবির অভিযোগ

  • আপডেট সময় Tuesday, March 23, 2021

আজমল হোসেন জুয়েল, তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার তালা সার্জিক্যাল ক্লিনিক চিকিৎসা সেবার নামে যেন এক কসাই খানা। ক্লিনিকটির বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় নানা অভিযোগ উঠলেও কর্তৃপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহন করতে পারেনি। ফলে রোগীদের ভোগান্তি বেড়েই চলেছে।

সর্বশেষ গত ২০ মার্চ শিলা খাতুন নামে সিজারিয়ান রোগীকে অক্সিজেন ছাড়াই সিজার সম্পন্ন করেন তারা। এতে মা ও নবজাতক দু’জনের অবস্থাই শংকার মধ্যে পড়ে। এক পর্যায়ে ২২ মার্চ সকালে নবজাতকের অবস্থা শংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে খুলনা শিশু হাসপাতালে রেফার করেন তারা। আজ ২৩ মার্চ শিশুটির প্রয়োজনে সেখানকার ডাক্তাররা তার মাকে খুলনায় নেওয়ার নির্দেশ দিলে বিয়টি তালা সার্জিক্যাল ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। তবে বেকে বসেছেন কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি, চুক্তির বাইরে মোট ১১ হাজার টাকা না দিলে রোগী ছাড়বেননা তারা।

প্রসঙ্গত, শিলার সিজারে ওটি ঔষধ কেবিনসহ চুক্তি ছিল ৯ হাজার টাকা দিতে হবে। তবে বর্তমানে তারা দাবি করছেন, ১১ হাজার টাকা। একদিকে কর্তৃপক্ষের ভূলে যেখানে মা ও শিশুর জীবন যেখানে সংকটাপন্ন সেখানে উল্টো তারা রোগীকে জিম্মি করে অতিরিক্ত টাকা দাবি করছেন।

সর্বশেষ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত রোগীর পরিবার ক্লিনিকের নীচ তলায় ক্লিনিক মালিক কথিত ডাক্তার বিধানের জন্য অপেক্ষা করলেও নীচে নামছেননা তিনি। ম্যানেজার বলছেন, টাকা দিয়ে রোগী নিয়ে যান। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই রোগীকে নিতে তার পরিবার ৮ হাজার টাকা দিতে চাইলেও তারা বলছেন আরো ৩ হাজার টাকা দিতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে তারা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews