1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
July 24, 2021, 8:40 pm
Title :
গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীরের মৃত্যুতে সাতক্ষীরা অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক সাতক্ষীরায় ২৪ ঘন্টায় আরও ৪ জনের মৃত্যু কালিগঞ্জে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, হয়রানী ও অব্যহত হুমকীর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন কলারোয়ায় নতুন করে ৩ মহিলাসহ ৫ জনের করোনা শনাক্ত : শনাক্তের হার ২৩ ভাগ কালিগঞ্জ গৃহবধু হত্যার ঘটনায় শ্বশুর ও শাশুড়ীকে আটক করেছে পুলিশ টোকিও অলিম্পিকে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দিলেন সাতক্ষীরার কৃতি সন্তান শেখ বশির আহম্মেদ মামুন করোনাকালীন সময়ে নিজ নিজ অবস্থান থেকে জনকল্যাণে অবদান রাখতে হবে-ইউএনও খন্দকার রবিউল ইসলাম জাতিসংঘে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীতা বিষয়ক রেজুলেশন উত্থাপন করলো বাংলাদেশ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল হতে অক্সিজেন সিলিন্ডার পাচারকারী চক্রের ৬ সদস্য আটক কিংবদন্তী গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর আর নেই!

যশোর থেকে সাতক্ষীরায় পালিয়ে আসা দুই করোনা রোগীকে ফেরত পাঠালো পুলিশ

  • আপডেট সময় Monday, April 26, 2021

অনলাইন ডেস্ক : দুই জন করোনা রোগী যশোর হাসপাতাল থেকে পালিয়ে সাতক্ষীরা এসেছে। এই দুইজনকে আবার আটক করে যশোরে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। তবে এই দুই রোগীর পরিচয় জানা যায়নি।

কোন এলাকায় এ জাতীয় করোনা রোগী থাকলে জেলা পুলিশকে জানানোর আহবান জানিয়েছেন পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ মোস্তাফিজুর রহমান। জেলা পুলিশের ফেসবুক পেজে  সোমবার এই আহবান জানানো হয়।

এদিকে যশোর থেকে পালিয়ে আরো ৭ জন করোনা রোগীকে আটক করেছে সংশ্লিষ্ঠ থানার পুলিশ। তাদের যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা জানার পর পুলিশ বেনাপোল ইমিগ্রেশন থেকে সাতজনের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করে। এরপর স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় তাদের ধরা হয়। তাদের হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

১৮ এপ্রিল থেকে ২৪ এপ্রিল সময়ের মধ্যে করোনা সংক্রমিত সাতজন যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দেশে ফেরেন। তাঁরা যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি ছিলেন। সেখান থেকে তাঁরা পালিয়ে যান। রোববার বিষয়টি জানাজানি হয়। ভারতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ভয়াবহ হওয়ায় এই পালানোর বিষয়টি আতঙ্কের সৃষ্টি করে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, সাতজন করোনা রোগীর মধ্যে ১৮ এপ্রিল একজন, ২৩ এপ্রিল পাঁচজন ও ২৪ এপ্রিল একজন আসেন। তাঁদের জরুরি বিভাগ থেকে হাসপাতালের তৃতীয় তলায় করোনা ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। তাঁরা ওয়ার্ডে না গিয়ে সেখান থেকে পালিয়ে যান।

এই সাতজন হলেন যশোর শহরের পশ্চিম বারান্দিপাড়া এলাকার মণিমালা দত্ত (৪৯), সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপপাড়া গ্রামের মিলন হোসেন (৩২), কালীগঞ্জ উপজেলার শেফালি রানী সরদার (৪০), রাজবাড়ী সদর উপজেলার রামকান্তপুর গ্রামের নাসিমা আক্তার (৫০), খুলনা সদর উপজেলার বিবেকানন্দ (৫২), পাইকগাছা উপজেলার ডামরাইল গ্রামের আমিরুল সানা (৫২) ও রূপসা উপজেলার সোহেল সরদার (১৭)।

যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আরিফ আহম্মেদ বলেন, ভারত থেকে আসা সাতজন করোনা পজিটিভ ছিলেন। তাঁদের হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তির পর করোনা ওয়ার্ডে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ভর্তির টিকিট ওয়ার্ডে পৌঁছেছে, কিন্তু রোগীরা সেখানে যাননি। হাসপাতালে থাকতে হবে বলে সেখান থেকে তাঁরা পালিয়ে গেছেন। গতকাল রোববার বিষয়টি জানা গেছে।

যশোরের সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীন বলেন, ভারত থেকে আসা সাতজন করোনা পজিটিভ রোগী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে গেছেন। তাঁদের পাসপোর্ট হাসপাতালের সিস্টারদের কাছে জমা থাকার কথা। কিন্তু সেটা ছিল না।

কেন সেটা ছিল না এবং হাসপাতালের নিরাপত্তাব্যবস্থা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি বলেন, পালিয়ে যাওয়া রোগীদের ব্যাপারে নিজ নিজ জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও সিভিল সার্জনের কাছে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক দিলীপ কুমার রায় বলেন, পালিয়ে যাওয়া সাত করোনা রোগীকে হাসপাতালে ফেরত আনা হচ্ছে। হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি থেকে তাঁরা চিকিৎসা নেবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews