শীতের কুয়াশামাখা সকালে সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বই উৎসব

মাহফিজুল ইসলাম আককাজ : ‘নতুন বইয়ের গন্ধ শুঁকে ফুলের মতো ফুটব বর্ণমালার গরব নিয়ে আকাশ জুড়ে উঠব” এই স্লোগানকে সামনে রেখে কুয়াশামাখা, শিশির স্নিগ্ধ সোনালি সকাল। শীতের মিষ্টি রোদের হাল্কা আঁচ নিতে নিতে যেন প্রস্ফুটিত হয়ে উঠেছিল শতসহ¯্র মুকুল। নিষ্পাপ মুখের মিষ্টি হাসির সঙ্গে রঙিন বইয়ের ঝাঁপি এনে দিল নতুন বছরের নতুন আনন্দ। সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পাঠ্যপুস্তক উৎসব দিবস ২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (০১ জানুয়ারী) সকালে জেলা শিক্ষা অফিসের আয়োজনে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল’র সভাপতিত্বে পাঠ্যপুস্তক দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বছরে নতুন বই তুলে দেন এবং বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাতক্ষীরা সদর ০২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।

এসময় তিনি বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। বাঙালী জাতি বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাড়াতে হলে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। শিক্ষার মান উন্নয়নে সরকার নানামুখী কর্মসূচী গ্রহন করেছেন। বিশ্বের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশ-ই বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দিচ্ছে। এসময় অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদেরকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান।’ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে

বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবাশীষ চৌধুরী, জেলা শিক্ষা অফিসার ও সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের (অতিঃ দাঃ) প্রধান শিক্ষক এস.এম আব্দুল্লাহ আল-মামুন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. রুহুল আমিন প্রমুখ।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক সামিমা ইসমত আরা, উম্মে হাবিবা, সিনিয়র শিক্ষক মো. আনিসুর রহমান, মো. আবুল খায়ের, মো. আলাউদ্দিন, দীপা সিন্ধু তরফদার, মমতাজ হোসেন, মো. হাবিবুল্লাহ প্রমুখ। বই উৎসবে এ বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে ২ হাজার ৬০ সেট নতুন বই তুলে দেওয়া হয়।

পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *