1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
September 24, 2021, 12:47 am
Title :
‘অতি জরুরি’ ভিত্তিতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন জোরদারের দাবি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র সাংবাদিকরা দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির সহায়ক শক্তি-তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী কলারোয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে বাল্যবিবাহের অপরাধে কনের বাবাকে আর্থিক জরিমানা কলারোয়ায় পানিকাউরিয়া মাধ্য. বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোমিনুর রহমান মন্টু’র ইন্তেকাল কলারোয়ায় হোমিওপ্যাথিক কলেজে প্রয়াত ডা: আনিছুর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের উদ্যোগে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের চেক বিতরণ বাংলাদেশ সম্ভাবনা ও সুযোগে পরিপূর্ণ দেশ – জেনেভায় ভূমিমন্ত্রী খানবাহাদুর আহছানউল্লা’র মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে সাহেব আলীর নির্বাচনী প্রচারণা শুরু সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে নাবী পাট বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ কলারোয়া থানা মসজিদে অজুখানা উন্নয়নে সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের বরাদ্দের অনুলিপি প্রদান

সাতক্ষীরায় শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে ‘হামলাকারী’ পলাতক আসামি আরিফুর রহমান রঞ্জু গ্রেফতার

  • আপডেট সময় Saturday, August 21, 2021

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধীদলে থাকা অবস্থায় ২০০২ সালে সাতক্ষীরায় তার গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় সাজাপ্রাপ্ত এক পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আরিফুর রহমান রঞ্জু (৪২) নামের ওই আসামিকে শুক্রবার রাতে হাজারীবাগ থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) হাফিজ আক্তার জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আরিফুর কলারোয়া সরকারি কলেজে ছাত্রদলের নেতা ছিল। সে দশ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি।

ধর্ষণের শিকার হয়ে চিকিৎসাধীন এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীকে দেখতে ২০০২ সালের ৩০ অগাস্ট সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে যান তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। সড়ক পথে ঢাকায় ফেরার সময় কলারোয়া উপজেলা বিএনপি অফিসের সামনে তার গাড়ি বহরে হামলা হয়।

বোমা বিস্ফোরণ ও গাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি শেখ হাসিনাকে লক্ষ্য করে গুলিও ছোড়া হয়। শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাসহ স্থানীয় নেতাকর্মী ও সাংবাদিকরা সেদিন আহত হন।

ওই ঘটনায় কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দিন কলারোয়া থানায় মামলা করতে গেলে তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। তখন সাতক্ষীরার আদালতে নালিশি অভিযোগ করেন কলারোয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের কমান্ডার মোসলেম উদ্দিন।

আদালত অভিযোগটি এজাহার হিসেবে গণ্য করতে সংশ্লিষ্ট থানাকে নির্দেশ দেয়। ওই মামলা খারিজ হয়ে যাওয়ার পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর মামলাটি পুনরুজ্জীবিত করা হয়।

তদন্ত শেষে তখনকার পুলিশ পরিদর্শক শফিকুর রহমান বিএনপির সাবেক সাংসদ হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৫০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন।

হত্যাচেষ্টা, বিস্ফোরক দ্রব্য ও অস্ত্র আইনের পৃথক ধারায় দেওয়া তিনটি অভিযোগপত্রের মধ্যে হত্যাচেষ্টা মামলার রায়ে ৫০ আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজায় দেয় সাতক্ষীরার আদালত।

এর মধ্যে কারাগারে থাকা সাবেক সংসদ সদস্য বিএনপি নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব এবং পলাতক আরিফুর রহমান ও রিপনকে কয়েকটি ধারায় দুই বছর ছয় মাস, ৫ বছর, ১ বছর, ছয় মাস এবং এক বছরের কারাদন্ড এবং অর্থদন্ড দেওয়া হয়। এক ধারার সাজা শেষ হওয়ার পর অন্য ধারার সাজা শুরু হবে। তাতে সব মিলিয়ে তাদের ১০ বছর সাজা খাটতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews