1. altafbabu1@gmail.com : news :
  2. altafbabu1@gmail.com : Satkhira Times : Satkhira Times
July 31, 2021, 8:12 am
Title :
কলারোয়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অমিত ঘোষ আটক তৃতীয় বর্ষ পেরিয়ে চতুর্থ বর্ষে পদার্পণ করল দৈনিক সুপ্রভাত সাতক্ষীরা সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের মাস্ক বিতরণ অব্যহত সালেহা ইসলাম শান্তি’র রোগ মুক্তি কামনায় প্রার্থনা জ্বালানি সহযোগিতা জোরদারে কাজ করছে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র আশ্রয়ণের ঘর নির্মাণে অনিয়ম বরদাশত করা হবে না-তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী কলারোয়ায় সেবা’ সংগঠনকে পিপিই, মাস্ক ও হ্যান্ড গ্লাভস প্রদান সাতক্ষীরায় আজিজা মান্নান ফাউন্ডেশনের সৌজন্যে হতদরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কলারোয়ায় আরও ৪ ব্যক্তির করোনা শনাক্ত : শনাক্তের হার শতকরা-২৩ ভাগ অতিবৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে সাতক্ষীরা শহর সহ নিম্নাঞ্চল

১৪ দিনেও সরানো হয়নি বুধহাটায় সড়কের উপর পড়ে থাকা বটবৃক্ষ

  • আপডেট সময় Saturday, July 3, 2021

এমএম সাহেব আলী : আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নে কালের স্বাক্ষী হয়ে বেঁচে থাকা বৃহদাকৃতির বটবৃক্ষ উপড়ে পড়ার পর ১৪ দিন অতিবাহিত হলেও সরানো সম্ভব হয়নি। ফলে যানবাহন ও পথচারীরা চরম দুর্গতির মধ্যে রয়েছে।

গত ১৯ জুন সকাল ১০ টার দিকে ২ শতাধিক (অনেকের ধারনা ৩/৪ শত বছর) বছর বয়সী বটবৃক্ষটি সড়কের উপর উপড়ে পড়লে সড়কটি বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে সাতক্ষীরা থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম সেখানে উপস্থিত হয় এবং পরিদর্শন শেষে তারা ফিরে যায়।

বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও জেলা পরিষদকে অবহিত করা হলেও গাছ সরানোর কোন ব্যবস্থা হয়নি। পাকা সড়ক বন্ধ করে পড়ে থাকা বৃক্ষ সরানোর ব্যবস্থা করার দায়িত্ব কার? এমন প্রশ্ন উত্থাপন করে এলাকার মানুষ হতভম্ব হয়ে পড়ে।

বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিঃ আ ব ম মোছাদ্দেক ফরেষ্ট অফিস, ইউএনও, জেলা পরিষদের সাথে বারবার যোগাযোগ করেন। ফরেস্ট অফিস পারবেনা জানিয়ে দেয়। ইউএনও জ্বরে আক্রান্ত থাকায় আসতে পারেননি।

জেলা পরিষদকে বলা হলে তাদের পক্ষে সম্ভব নয়, যেভাবে পারেন গাছ সরানোর ব্যবস্থা নিতে পারেন বলে জানিয়ে দিয়ে দায় থেকে নিস্কৃতি পেতে চেষ্টা করে। বাধ্য হয়ে চেয়ারম্যান নিজের ব্যক্তিগত তহবিল হতে ১০ হাজার টাকা দিয়ে গাছ কেটে নেওয়ার জন্য একজনের সাথে চুক্তি করেন। অবশ্য গাছটি ঐ ব্যক্তি ফ্রি পাবেন।

তিনি দু’দিন পর গাছ কাটা শুরু করেন, কিন্তু বটবৃক্ষ কাটা যেমন কঠিন, তেমনি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার হওয়ায় দীর্ঘ সময় লাগতে থাকে। বর্তমানে সড়কের উপর দিয়ে ছোটখাট যানবাহন চলাচল করার মত পথ বের করা হলেও সড়ক থেকে গাছ সরানো সম্ভব হয়নি।

গাছটি এখনো পুরো সড়কের উপর দিয়ে আড়াআাড়ি পড়ে আছে। উপজেলা-জেলা প্রশাসন, জেলা পরিষদ কেউ এগিয়ে না আসায় হাত করাত দিয়ে গাছটি কেটে নিতে দীর্ঘ সময় লেগে যাচ্ছে। আর কতদিন এলাকার মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হবে তা বলা মুশকিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 satkhiratimes24.com
Theme Customized By BreakingNews