সবাই যখন প্রিয় মানুষের হাতে ফুল তুলে দিয়ে ভালোবাসা দিবস উদযাপনে ব্যস্ত সময় পার করছেন ঠিক তখনই খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় ভিন্ন আয়োজনে ভালোবাসা দিবস উদযাপন করেছে সামাজিক সংগঠন ‘বন্ধু জুনিয়র যুব ক্লাব’।

‘ফুল একদিনের, কোরআন শরিফ প্রতিদিনের’ স্লোগানকে সামনে রেখে বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালের দিকে ‘বন্ধু জুনিয়র যুব ক্লাবের উদ্যোগে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার শতাধিক মানুষের হাতে কোরআন শরিফ ও হাদিসের বই তুলে দেয়া হয়।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা সদরের ব্যস্ত সড়কের পাশে ছোট্ট প্যান্ডেলে দিবসটির এমন আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামসুদ্দিন ভুইয়া, তবলছড়ি গ্রিন হিল কলেজের প্রভাষক মো. হাফিজুর রহমান, মাটিরাঙ্গা পৌররসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী ও বন্ধু জুনিয়র যুব ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মো. মামুনুর রশীদ মামুন প্রমুখ।

এটা অবশ্যই ব্যতিক্রমী চিন্তার ফসল উল্লেখ করে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শামসুদ্দিন ভুইয়া বলেন, ‘আমরা অনেকেই যা চিন্তা করিনি তরুণরা সে চিন্তার বাস্তবায়ন ঘটিয়েছে। দিন শেষে ফুল শুকিয়ে যাবে, হারিয়ে যাবে ভালোবাসাও। কিন্তু কোরআন শরিফের আলো পরিবার থেকে শুরু করে সমাজকে আলোকিত করবে’।

বন্ধু জুনিয়র যুব ক্লাব বরাবরই চমক সৃষ্টি করেছে মন্তব্য করে তবলছড়ি গ্রিন হিল কলেজের প্রভাষক মো. হাফিজুর রহমান বলেন, ‘ভালোবাসা দিবসে কোরআন শরিফ বিতরণ তাদের নতুন চমক। এমন আয়োজন আমাদেরকে ভালোবাসা দিবস মানেই ফুল এ চিন্তা থেকে বের হওয়ার পথ দেখাবে’।

বন্ধু জুনিয়র যুব ক্লাবের অসাধারণ আয়োজনের প্রশংসা করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ বলেন, ‘এ সংগঠনের প্রতিটি কর্মসূচিই নান্দনিক। ভালোবাসা দিবসে পথচারীদের হাতে কোরআন শরিফ ও হাদিসের বই তুলে দেয়ার মধ্য দিয়ে তারা প্রকৃত ভালোবাসার আলো ছড়িয়ে দিল। যে ভালোবাসার আলো কখনো নিভে যাবে না। যে আলো অনেককেই আলোকিত করব’।