সব ঠিকঠাক থাকলে ২৬ ফেব্রুয়ারি বিয়ে করতে যাচ্ছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার সৌম্য সরকার। অনুষ্ঠানকে সামনে রেখে এরই মধ্যে নিমন্ত্রণ পত্র ছেপেছে সৌম্যর পরিবার। আর এতে জলছাপে সৌম্যর সঙ্গে রয়েছেন তার হবু স্ত্রী প্রিয়ন্তি দেবনাথ পূজাও।

রোববার সকাল থেকে নিমন্ত্রণ পত্র বিতরণ শুরু করেছে সৌম্যর পরিবার।

জাতীয় দলের ক্রিকেটারের হবু স্ত্রী প্রিয়ন্তি ওষুধ ব্যবসায়ী গোপাল দেবনাথের মেয়ে। তাদের বাড়ি খুলনার হাজিবাগ রোডে। তারা থাকেন রাজধানীর গ্রিন রোডে। পূজা রাজধানীর একটি কলেজে ‘এ’ লেভেলে পড়ছেন।

সৌম্যর বাবা সাতক্ষীরা জেলার সাবেক শিক্ষা কর্মকর্তা কিশোরী মোহন সরকার জানান, ঘরোয়া পরিবেশে আশীর্বাদ অনুষ্ঠিত হবে। ২২ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরায় সৌম্যর আশীর্বাদ। ২৪ ফেব্রুয়ারি খুলনায় মেয়ের বাড়িতে আশীর্বাদ হবে। গায়ে হলুদ হবে বিয়ের দিন সকালে।

তিনি বলেন, ‘খুলনা ক্লাব হলরুমে ২৬ ফেব্রুয়ারি বুধবার মধ্যরাতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। আমরা বিয়ের জন্য দাওয়াতপত্র বিতরণ শুরু করেছি। এখনো অনেক কাজ বাকি রয়েছে।’

সৌম্যর বাবা জানান, ২৮ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরার মোজাফফর গার্ডেনে (মন্টুমিয়ার বাগানবাড়ি) সন্ধ্যায় বউ ভাতের আয়োজন করা হয়েছে। দেড় হাজার মানুষের আয়োজন করা হচ্ছে।

ক্রিকেটারের ঘনিষ্ঠ এক বন্ধু জানান, ৩০০ বরযাত্রী নিয়ে সৌম্য সরকার বিয়ে করতে যাবেন এমন প্রস্তুতি চলছে। এখনো চূড়ান্ত হয়নি। দুই-তিন দিনের মধ্যে বিষয়টি চূড়ান্ত হবে।

সৌম্য সরকার ও প্রিয়ন্তির মধ্যে আগে থেকেই পরিচয় ছিল। পরিবারও সম্মতি দিয়েছেন তাদের বিয়েতে।

এ বিষয়ে সৌম্যের বাবা কিশোরী মোহন সরকার বলেন, ‘পারিবারিক সম্মতিতে বিয়ে হচ্ছে। পূজার বাবা ব্যবসায়ী। এর বেশি কিছু বলা যাবে না।’