ঝালকাঠির পোনাবালীয়ার ঐতিহ্যবাহী শিবমন্দিরে ২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে তিন দিন ব্যাপী শিব চতুর্দশী মেলা।

জানাগেছে, এখানে ৩শ’ বছর আগে থেকে ঐতিহাসিক এ মেলাটি অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।

এ জায়গাটি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ৩নং আন্তর্জাতিক পীঠস্থান খ্যাত।

২১ থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারী রোববার পর্যন্ত হাজারো ভক্তদের পদচারণয় মুখরিত থাকবে মন্দির প্রাঙ্গণ ও তার আশপাশের এলাকা।

শিব চতুর্দশী উপলক্ষে ২১ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার সন্ধ্যা ৬:১০ মিনিট থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৭:০৮ মিনিট পর্যন্ত দেশ বিদেশের হাজার হাজার পূন্যার্থীরা শিব দর্শন করবেন।

একই সাথে মানত অনুযায়ী শিশুদের মাথার চুল ফেলা, ভক্তদের পুণ্যস্নান এবং বিভিন্ন ধরনের পূজাঅর্চনা অনুষ্ঠিত হবে। সর্বশেষে ত্র্যম্বকেশ্বর ভৈরবের পূজার মধ্যদিয়ে শিব চতুর্দশীর আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে।

তবে সকল ধর্মের দর্শনার্থীদের জন্য মেলা চলবে রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত।

এই মন্দিরটির ইতিহাস খুঁজে যা পাওয়া যায় তা হলো, তৎকালীন রাজা দক্ষ মহাশয় যজ্ঞ করার সময় কন্যা সতীকে নিমন্ত্রণ না করায় অপমানিত সতী যজ্ঞস্থলে দেহ ত্যাগ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শিবের স্ত্রী সতীর দেহ মাথায় নিয়ে প্রলয় নাচন শুরু করলে জগতকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে দেবতা বিষ্ণু চক্রদিয়ে সতীর দেহ ৫১ খন্ড করেদেয়। আর খন্ডিত অংশগুলো যেসব স্থানে পড়েছে তার মধ্যে সুগন্ধা নদীর তীরবর্তী পোনাবালীয়া গ্রাম একটি স্থান।

এখানে দেবী সতীর নাসিকা খন্ড পড়েছিল। ফলে অন্যান্য স্থানের মত এ স্থানটিও তীর্থ স্থানে পরিণত হয়। এদিকে মেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সার্বক্ষণিক পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলে জানিয়েছেন সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খালিলুর রহমান।

এছাড়াও মন্দির ও মেলা প্রাঙ্গণ সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে মনিটরিং করা হবে বলে জানিয়েছে আয়োজক কমিটি।