খুলনা, ০১ চৈত্র (১৫ মার্চ): আগামী ১৮ মার্চ থেকে ১১ এপ্রিল খুলনা জেলায় পাঁচ লাখের অধিক শিশুকে হাম-রুবেলা টিকা দেয়া হবে। হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন পালন উপলক্ষে খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তরের আয়োজনে আজ (রবিবার) সকালে স্কুল হেলথ ক্লিনিক সম্মেলনকক্ষে জেলা পর্যায়ে সমন্বয় সভা এবং সাংবাদিক সম্মেলনে খুলনার সিভিল সার্জন ডাঃ সুজাত আহমেদ এই তথ্য জানান।

সভায় আরও জানানো হয়, এই কর্মসূচিতে খুলনার নয়টি উপজেলার প্রায় এক হাজার আটশত ৫৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ টিকাদান কেন্দ্রে প্রায় তিন লাখ ৩৩ হাজার ৮৭ শিশুকে এবং খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৩১টি ওয়ার্ডের পাঁচশর অধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এক লাখ ৮৫ হাজার দুইশ শিশুকে হাম-রুবেলা টিকা দেয়া হবে। খুলনা জেলায় সর্বমোট পাঁচ লাখ ১৯ হাজার ৭৮ শিশুকে হাম-রুবেলা টিকা টিকার আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য ১৮ মার্চ থেকে ২৫ মার্চ পর্যন্ত (প্রথম সপ্তাহে) যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চতুর্থ শ্রেণি বা সমমান পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা অধ্যয়ন করে সে সকল প্রতিষ্ঠানে এমআর (হাম-রুবেলা) টিকাদান ক্যাম্পেইন চলবে। ক্যাম্পেইনের প্রথম সপ্তাহে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এক ডোজ এমআর (হাম-রুবেলা) টিকা দেওয়া হবে।

এছাড়া ২৮ মার্চ থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত (২য় ও তয়) সপ্তাহে যে সকল শিশু স্কুলে যায় না বা স্কুলে টিকা গ্রহণ করে নাই তাদেরকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় সপ্তাহে টিকাদান কেন্দ্রেগুলোতে এক ডোজ এমআর টিকা প্রদান করা হবে। শিক্ষার্থীরা যদি কোন কারণে নির্ধারিত তারিখে স্কুলে টিকা নিতে না পারে তবে কেন্দ্রে এমআর টিকা দেয়া যাবে। হাম-রুবেলার প্রকোপ থেকে শিশুকে বাঁচানোর জন্য নয় মাস থেকে ১০ বছরের নিচের সকল শিশুকে এক ডোজ এমআর টিকা প্রদান করা হবে।

সাংবাদিক সম্মেলন ও সমন্বয় সভায় খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল,পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ আব্দুল আলীম, খুলনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজাসহ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা অংশ নেন। হাম-রুবেল বিষয়ে ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন ডাব্লিউএইচওর প্রতিনিধি সৈয়দ ডাঃ আহসান রিজভী।