অনলাইন ডেস্ক : মন্ত্রিসভা আজ প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে পূর্ব সর্তকতামূলক পদক্ষেপের অংশ হিসাবে বিদেশ ফেরতদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো বাধ্যতামূলক ও ৩১ মার্চ পর্যন্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণাসহ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ তাঁর অফিসে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত সাপ্তাহিক বৈঠকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়। সভায় করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া বন্ধে সারাদেশে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে ব্যাপক প্রচারনা চালাতে স্থানীয় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়া হয়।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। তিনি বলেন, মন্ত্রিসভা আজ বিদেশ ফেরত বাংলাদেশীদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো বাধ্যতামূলকসহ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সভায় জানানো হয়, রংপুর বিভাগীয় কমিশনারকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। তিনি সম্প্রতি বিদেশ থেকে দেশে ফিরেছেন। দেশে ফেরার পরই তাকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়।

তিনি আরো জানান, কেউ কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার নিয়মের লংঘন করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে মন্ত্রিসভার বৈঠকে। এ প্রসঙ্গে তিনি মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসকের নেয়া ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করেন।

মানিকগঞ্জে সৌদি ফেরত এক বাংলাদেশী কোয়ারেন্টাইনে না যাওয়ায় তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি আরো জানান, কেউ কোন রুগির মাধ্যমে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সরকারের এই শীর্ষ আমলা জানান, সরকার স্কুল কলেজ মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে। ছেলে মেয়েদের বাড়িতে রাখতে তিনি বাবা মা’র প্রতি আহবান জানান। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কোন ছেলে মেয়ে বাসার বাইরে ঘোরাফেরা করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সারাদেশে ব্যাপক জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় প্রশাসন ও মসজিদের ইমামদের প্রতি ইতোমধ্যেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তিনি আরো বলেন, জর, কফ ও ঠান্ডা জনিত রোগ নিয়ে অফিসে না আসতে সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।