স্টাফ রিপোর্টার : করোনা ভাইরাস থেকে সর্তক থাকতে এবং লোকসমাগম এড়িয়ে চলতে তালা উপজেলার খলিষখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ব্যতিক্রম উপায়ে ভিজিডি কার্ডধারীদের বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে চাউল পৌছে দিয়েছেন।

মঙ্গলবার পাটকেলঘাটা খাদ্যগুদাম থেকে মার্চ মাসের বরাদ্ধকৃত ২০২ জন গরীব ও দুস্থ্য নারীদের চাউল তুলে তা ভ্যান যোগে গ্রামে গ্রামে পাঠানো হয়। খলিষখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান চাউলের ভ্যান নিয়ে গ্রামে গ্রামে কার্ডধারীদের বাড়ীতে গিয়ে হাজির হন।

এসময় তিনি ৩০ কেজি ওজনের বস্তা ভর্তি চাউল ভিজিডি কার্ডধারীর হাতে তুলে দেন। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় প্রসংশিত হয়েছেন চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান।

এসময় তালা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন্নাহার, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মো: শহিদুল ইসলাম, স্ব স্ব ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য, দফাদারসহ গ্রাম পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

চাউল বিতরনের সময় করোনা ভাইরাস নিয়ে আতংকিত না হয়ে সর্তকতার সাথে থাকতে এবং সরকারী সকল নির্দেশনা মেনে চলতে সাধারন গ্রামবাসীদের অনুরোধ করেন।

খলিষখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর রহমান জানান, করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষাপেতে ও সর্তক থাকতে সরকার ২৬ মার্চ থেকে দেশে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এজন্য ভিজিডি কার্ডধারী গরীব, দুস্থ্য নারীরা যাতে মার্চ মাসের তাদের চাউল পেয়ে যায় এজন্য তাদের বাড়ীতে বাড়ীতে চাউল পৌছে দেয়ার সিদ্ধন্ত নেয়া হয়।

মঙ্গলবার দুপুর থেকে ভ্যান করে ওর্য়াডে ও গ্রামে গ্রামে কার্ডধারীদের কাছে চাউল পৌছে দেয়া হয়। একই সাথে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সর্তক থাকতে সকলকে নিজ বাড়ীতে থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে।

এদিকে সন্ধায় খলিষখালী ইউনিয়নে গাছা, দলুয়া,বাগমারা,খলিষখালী, ইসলামকাটি বাজারে উপস্থিত থেকে সকল চায়ের দোকান বন্ধ করে দেয়া হয়।