মুরশিদ আলম নয়ন : করোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষকে ঘরে ফেরাতে ও বাড়িতে অবস্থানকারী দুস্থ মানুষের মাঝে আশাশুনি উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মোস্তফা কামাল মহোদয়ের নির্দেশে রবিবার উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

আশাশুনি উপজেলার সকল ইউনিয়নে বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনার কারনে কাজ বন্ধ এমন চা বিক্রেতা, দিনমজুর, দুস্থ, অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণের ২৫০ (আড়াইশত) খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়।

জেলা প্রশাসক এর বরাদ্দকৃত ৫০ হাজার টাকা ও ৫ মেঃটন চাউলের মধ্য হতে উপজেলার ১১ ইউনিয়নে প্রাথমিক ভাবে ২৫০ প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হয়েছে। প্রতি প্যাকেটে চাউল ১০ কেজি, ডাউল ১ কেজি, তেল ১ কেজি, লবণ ১ কেজি, আলু ৩ কেজি ও ডেটল সাবান ১ টি করে দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান এ বি এম মোস্তাকিম ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা নিজে এবং সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দের মাধ্যমে খাদ্য প্যাকেট বিতরণ করা হয়।

এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী, পিআইও সোহাগ খান, ইউপি চেয়ারম্যান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। একই সাথে বুধহাটা ইউনিয়নের চাপড়া বাজার ও বুধহাটা বাজারে দ্রব্যমূল্য ও নিরাপদ দূরত্বের বিষয়ে মনিটরিং করা হয়।

বাজার স্থিতিশিল ও অধিকাংশ দোকানে মূল্য তালিকা টানানো পাওয়া যায়। পণ্যের মূল্য যাতে বৃদ্ধি না পায় সেজন্য সতর্ক করা হয় এবং মূল্যতালিকা না থাকায় এক ব্যবসায়ীকে ৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়।