আরিফুল ইসলাম আশা : করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে কৃষির বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা নিয়ে কৃষি বিভাগের সাথে জেলা প্রশাসকের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী জেলার কোন জমি যেন অব্যবহৃত না থাকে সে বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

করোনায় জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে কৃষি কর্মপরিকল্পনা সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহ –

*বোরো ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে এখন থেকে কর্তন শেষ না হওয়া পর্যন্ত কৃষকদের’কে কারিগরি ও প্রযুক্তিগত সুবিধাসহ সবধরনের সুযোগ সুবিধা প্রদান করতে হবে।

*জেলায় স্থানীয় ভাবে উৎপাদিত বিভিন্ন প্রকার সবজি ভ্রাম্যমাণ বাজার তৈরি করে নিরাপদ স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ন্যায্য মূল্যে বাজারজাত করণের ব্যবস্থা করতে হবে।

*সার, বীজ, কীটনাশক ও কৃষি যন্ত্রের যন্ত্রাংশের বিক্রয়কেন্দ্র/দোকান নিরাপদ স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত খোলা রাখার ব্যবস্থা করতে হবে।

*বোরো ধান কর্তন সময়ে কৃষি শ্রমিক প্রাপ্তিতে যাতে কোন সমস্য না হয়, সেজন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে সতর্ক থাকতে হবে।

উল্লেখ্য জেলা প্রশাসক নববর্ষের দিনে জেলা প্রশাসকের বাংলোর অব্যবহৃত কৃষি জমি খনন করেন এবং ফেসবুক লাইভ এ সবাইকে অব্যবহৃত কৃষি জমি চাষাবাদে উদ্বুদ্ধ করেন।