ঢাকা, ৫ জ্যৈষ্ঠ (১৯ মে): করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ দরিদ্র মানুষ ও ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসমূহকে আর্থিক সহায়তার জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের এটুআই ক্রাউডফান্ডিং মডেলের ‘একদেশ’ নামক একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছে।

এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল-সহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ যাকাত কিংবা আর্থিক অনুদান দিতে পারবেন।

একদেশ প্ল্যাটফর্মটি বিদ্যমান পেমেন্ট পদ্ধতি সহজীকরণে তৈরিকৃত ‘একপে’ প্ল্যাটফর্মের সাথে যুক্ত। এর মাধ্যমে যে কেউ তাঁর আর্থিক অনুদান কিংবা যাকাত তার পছন্দের যে কোনো সরকারি-বেসরকারি প্ল্যাটফর্মে প্রদান করতে পারবে।

ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, ব্র্যাক, বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন, সেন্টার ফর যাকাত ফাউন্ডেশন, সিআরপি, সাজেদা ফাউন্ডেশন এই প্ল্যাটফর্মের সাথে যুক্ত হয়েছে।

একদেশ প্ল্যাটফর্মে আরো এমন প্রতিষ্ঠান যুক্ত হওয়ার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। এই উদ্যোগে ব্যাংকিং পার্টনার হিসেবে রয়েছে ব্যাংক এশিয়া।

‘একদেশ’-এর মাধ্যমে জরুরি খাদ্য সহায়তা ও ত্রাণ বিতরণ, চিকিৎসা সেবা, স্বাস্থ্য সুরক্ষার উপকরণ, নগদ অর্থ সহায়তা, ভাসমান ও দুস্থ মানুষের পূনর্বাসন-সহ সুবিধাবঞ্চিতদের সহযোগিতা করা যাবে।

এর মাধ্যমে খুব সহজে জনগণ তাঁর পছন্দের প্রতিষ্ঠানকে যে কোনো ব্যাংকিং চ্যানেলের সহযোগিতায় অর্থ প্রদান করতে পারবে। ফলে ভবিষ্যতেও যে কোনো দুর্যোগের সময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর একটা সহজ পথ তৈরি হবে।

এছাড়া এই ধরনের ক্রাউডফান্ডিং উদ্যোগ সবার ছোট ছোট অবদানের মাধ্যমে বিভিন্ন সমস্যা সমাধান ও উদ্ভাবনে বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি করবে। এতে অর্থ লেনদেনেও এক ধরনের স্বচ্ছতা আসবে।

একদেশ-এর মাধ্যমে যাকাত কিংবা আর্থিক অনুদান প্রদান করতে একপে’র ওয়েবসাইটে https://ekdesh.ekpay.gov.bd/ প্রবেশ করতে হবে অথবা প্লে-স্টোর থেকে ‘একদেশ’ অ্যাপ ডাউনলোড করা যাবে।