শুটিং করতে গিয়ে ক্রেনের উপর থেকে পড়ে গুরুতর জখম হয়েছিলেন খলঅভিনেতা সাঙ্কু পাঞ্জা। তার মাথায় ও মুখে বেশকিছু সেলাই দিতে হয়েছিল। তারপর থেকে নিয়মিত শুটিং করতে পারেন না। সেই চিকিৎসা ভার বহন করতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছিল সাঙ্কু পাঞ্জাকে।

এমন সময়ে শিল্পীর পাশে গিয়ে দাঁড়ান মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, সাতক্ষীরার কৃতি সন্তান নাট্যনির্মাতা জি.এম সৈকত। তার আবেদন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জমা দেন সৈকত। পরবর্তীতে এ অভিনেতাকে চিকিৎসা বাবদ অনুদান হিসেবে ৫ লাখ টাকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এজন্য নির্মাতা জিএম সৈকতও প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। দুই শতাধিক ছবির অভিনেতা সাঙ্কু পাঞ্জা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, তাঁর এই মহান মানসিকতা আমাদের মতো শিল্পীদের কাছে অনুপ্রেরণার।

মাস দুয়েক আগেই ৫ লাখ টাকা অনুদান কার্যকর হলেও করোনার কারণে গিয়ে নিতে পারিনি। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)