বিশেষ প্রতিনিধি : নদীতে জোয়ারের পানির প্রবল তোড়ে ভেঙে গেছে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ও শ্রীউলা ইউনিয়নের রিংবাঁধ। ফলে প্লাবিত হচ্ছে ইউনিয়ন দুটির প্রায় সব গ্রাম।

এর আগে ২০ মে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তান্ডবে উপকূল রক্ষাবাঁধ ভেঙে গেলে স্থানীয়দের প্রচেষ্টায় বাঁশ, বস্তা দিয়ে বাঁধ নির্মাণ করা হয়। কিন্তু ২০ আগস্ট নদীর জোয়ারের পানি অস্বাভাবিকভাবে উঁচু হয়ে তীব্র স্রোতে এলাকার রিংবাঁধ ভেঙে আবারও প্লাবিত হয় পুরো এলাকা। আম্পানের পর থেকে দীর্ঘ ৪ মাস অতিবাহিত হলেও সরকারিভাবে বাঁধ সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

বাঁধ ভেঙে গ্রামগুলো ভাসিয়ে নিয়ে যাওয়ায় আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছে হাজারো মানুষ। তাদেরকে নিরাপদে আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ চলছে বলে জানান প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন ও শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল।

এদিকে ভাঙনের খবর শুনে শনিবার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেছেন সাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডাক্তার আ ফ ম রুহুল হক। পরিদর্শন শেষে তিনি জানান- সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলাপ আলোচনা করে বাঁধ তৈরির চেষ্টা অব্যাহত আছে।