বিশেষ প্রতিনিধি : সীমান্তের ওপারে টানা ৫ দিন আটকে থাকার পর অবশেষে আসলো পেঁয়াজের ট্রাক। সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে শনিবার দুপুর থেকে পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক আসতে শুরু করেছে। এর আগে, গত ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার থেকে ভারতীয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ফরেন ট্রেড এর এক চিঠিতে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করে দেয়।

১৮ সেপ্টেম্বর ওই ফরেন ট্রেড এর অপর এক চিঠিতে শর্ত সাপেক্ষে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি হবে বলে ভারতীয় সিএন্ডএফ সূত্রে জানানো হয়।

এদিকে, সীমান্তের ওপারে ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে আটকে থাকা পেঁয়াজ বোঝাই ২৫৫টি ট্রাকের মধ্যে কাগজপত্র প্রস্তুত রয়েছে এমন ৩২টি ট্রাক ১৯ সেপ্টেম্বর ভোমরা বন্দরে প্রবেশ করবে বলে জানিয়েছেন ভোমরা সিএন্ডএফ এজন্ট এ্যাসোসিয়েশনের বন্দর বিষয়ক সম্পাদক আমির হামজা।

ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম জানান, পূর্বের এলসি করা ২৫৫ টি পেঁয়াজ ভর্তি ট্রাক ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে আটকে রয়েছে। এর মধ্যে শনিবার কাগজপত্র প্রস্তুত রয়েছে এমন মোট ৩২টি ট্রাক ভোমরা বন্দরে প্রবেশ করবে।

প্রতি ট্রাকে ২২ থেকে ২৫ টন পেঁয়াজ আমদানি হবে বলে জানান তিনি। বাকীগুলো পর্যাক্রমে প্রবেশ করবে। তবে, ভোমরা ও হিলিসহ তিনটি বন্দর দিয়ে মোট ২৫ হাজার মেট্রিকটন পেঁয়াজ বাংলাদেশে রপ্তানীর ঘোষণা দিয়েছে ভারত সরকার । সেই হিসেবে ৮ হাজার মেট্রিকটন পেঁয়াজ ভোমরা বন্দর দিয়ে আসার কথা।

এই ঘোষণার পর শনিবার দুপুর ১টা থেকে পেঁয়াজবাহি ভারতীয় ট্রাক ভোমরা বন্দরে প্রবেশ করতে শুরু করে। এদিকে, পেঁয়াজবাহি ট্রাকগুলো ৫দিন আটকে থাকার কারনে অনেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ব্যবসায়িরা।

ভোমরা স্থল বন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন হোসেন জানান, শনিবার দুপুর ১টা থেকে পেঁয়াজ আসতে শুরু করেছে। কতটা পেঁয়াজ আসবে তা ভারতের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে বলেও জানান তিনি।