খুলনা, ০৬ আশ্বিন (২১ সেপ্টেম্বর) : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, সরকার সুবিধাবঞ্চিতদের অর্থসহ বিভিন্ন সহায়তা দিচ্ছে। বাড়িতে বসেই তারা মোবাইলের মাধ্যমে অর্থ তুলতে পারছেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু থেকে নিম্নআয়ের শ্রমজীবী, অসহায় ও হতদরিদ্রদের মাঝে নগদ অর্থসহ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। অসচ্ছল, দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত নারীদের আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি আজ (সোমবার) সকালে নগরীর ৩০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সম্মেলনকক্ষে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা খুলনা মুক্তিসেবা সংস্থা (কেএমএসএস) এর আয়োজনে করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

সিটি মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুস্থ ও অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানোর জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সরকার অসহায় ও দুস্থদের ভাতা চালু করেছে। প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়ষ্ক, বিধবাভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, মুক্তিযোদ্ধাভাতা, ভিজিডিকার্ড এবং ভিজিএফকার্ড বর্তমান সরকারের অন্যতম পদক্ষেপ।

সীমিত সম্পদের মধ্য দিয়েও দেশের দারিদ্র মানুষকে স্বাবলম্বী করার চেষ্টা করছে সরকার। করোনাকালে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর পাশে দাড়াঁনোর জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান সিটি মেয়র।

৩০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এসএম মোজাফ্ফর রশিদীর রেজার সভাপতিত্বে এসময় খুলনা মুক্তিসেবা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক আফরোজা আক্তার উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে প্রথম কিস্তিতে দুই হাজার পাঁচশত টাকা করে ৪৯ জনের মাঝে মোট এক লাখ ২২ হাজার পাঁচশত টাকা বিতরণ করেন।

পরে মেয়র ৩১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরে দুই হাজার পাঁচশত টাকা করে ৫৬ জনের মাঝে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা বিতরণ করেন। এর আগে মেয়র টুটপাড়া গাজী ফুডস এন্ড বেভারেজের উদ্বোধন করেন।