দীপক শেঠ, কলারোয়া : সনাতন ধর্মালম্বীদের সব চেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা বিজয়া দশমীর মধ্য দিয়ে কলারোয়ায় সনাতন ধর্মালম্বীরা অশ্রুভেজা ভালোবাসায় দেবীকে বিদায় জানালেন। করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবে শোভাযাত্রার নেই কোন সমারোহ ,তবু তো বিজয়া দশমী!

‘দুর্গতিনাশিনী’ দেবীর দেবালয়ে ফেরার দিনে ঢাকের বাদ্য আর অশ্রুভেজা ভালোবাসায় তাকে বিদায় জানালো কলারোয়া উপজেলার সকল সনাতন ধর্মালম্বীরা। সোমবার (২৬ অক্টোবর) দশমী তিথিতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সমাপ্তি হলো শারদীয় দূর্গাৎসব।

এ বছর কলারোয়া উপজেলায় ৪১ টি পূজা মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলারোয়া পৌর সদরের হরিতলা সার্বজনীন পূজা মন্ডপ ও মুরারীকাটি পাল পাড়া পূজা মন্ডপের প্রতিমা ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী পার্শ্ববর্তী বেত্রবতী নদীতে দেবীর বিসর্জন সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানা যায়।

এ ছাড়া উপজেলার অনান্য পূজা মন্ডপের প্রতিমা ( দেবী দূর্গা) কে স্ব-স্ব এলাকার পুকুরেসহ সুবিধাজনক জলাশয়ে বিসর্জন দেয়া হয়।

কলারোয়া পূজা উৎযাপন পরিষদের সভাপতি মনোরঞ্জন সাহা জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিমা বিসর্জন দেয়ার জন্য সকল পূজা উৎযাপন কমিটির কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।

তিনি সনাতন ধর্মালম্বীসহ সকল উপজেলাবাসীকে শারদীয় বিজয়ার শুভেচ্ছা জানান।

কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর খায়রুল কবির জানান, নিরাপত্তাসহ সকল ব্যবস্থা গ্রহনের মধ্য দিয়ে সনাতন ধর্মালম্বীরা সুষ্ঠ ও সুন্দর পরিবেশে ধর্মীয় রীতি মেনেই প্রতিমা বিসর্জনের কার্য সম্পন্ন করেছেন।