সাতক্ষীরা সদরের পারশাল্যে এলাকায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনদের মারপিটের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকাল ৪টায় পারশাল্যে কালিমন্দির চত্বরে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন, সদর উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি নিত্যনন্দ আমীন।

সাতক্ষীরা জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের আয়োজনে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের জেলার সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার শীল, সভাপতি মন্ডলীর সদস্য সুধাংশু শেখর সরকার, বিকাশ দাশ, অসীম দাশ সোনা, যুব ঐক্য পরিষদের রণজিত ঘোষ, মিলন রায়, রণজিত সরকার, থিউফিল গাজী, সাবেক ইউপি সদস্য নূরুল হুদা, মহিলা সদস্য মালঞ্চ বিবি। সভা পরিচালনা করেন, সংগঠনের সদর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক বাসুদেব সিংহ।

সভায় নেতৃবৃন্দ সংখ্যালঘুদের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান এবং ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের শান্তিপূর্ণ বসবাসের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানান।

উল্লেখ্য: শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পারশাল্যে গ্রামের শ্মশান ও সমাধীর জায়গা থেকে মাটি কাটার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নারীসহ ১০/১২ জন কে মারপিট করে গুরুতর আহত করে।

মহিলাদের শ্লীলতা হানি, বাড়ি ঘরভাংচুর ও লুটপাট চালিয়ে তাদেরকে প্রাণ নাশ ও দেশত্যাগে বাধ্যকরার হুমকি প্রদর্শন করে। স্থানীয় ইটভাটার মালিক জনৈক পারভেজের ম্যানেজার রবিউল ইসলামের নির্দেশে ও ভূমিদস্যু আলালের নেতৃত্বে স্থানীয় উশৃঙ্খল ১০/১২ যুবক এ হামলা চালায়। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)